ঢাকা: বিএনপি’র নির্বাচন বর্জন পূর্ব পরিকল্পিত দাবি করে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন হওয়ায় তাদের পরিকল্পনা ভেস্তে গেছে।

তিনি বলেন, গত ৫ জানুয়ারি নির্বাচনে না এসে তারা (বিএনপি) ভুল করেছিল।

সেই না আসার সিদ্ধান্তই সঠিক ছিল প্রমাণ করতে তারা ভোট কারচুপির অভিযোগ তুলে সিটি করপোরেশন নির্বাচন বর্জন করেছে। কিন্তু সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ায় তারা সফল হয়নি।

বুধবার (২৯ এপ্রিল) রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এক আলোচনা সভা শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ সাম্যবাদী দল ‘বিসিআইএম ইকোনোমিক করিডোর: হারমোনিয়াস সাউথ এশিয়া’ শীর্ষক এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

তোফায়েল বলেন, বিএনপি’র নির্বাচন থেকে সরে যাওয়া পূর্ব পরিকল্পিত। দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খানের একটি ‘কল রেকর্ড’ ছড়িয়ে পড়েছে, যেখানে তিনি মাঠ পর্যায়ের একজন নেতার সঙ্গে আলাপ করছেন ‘নির্বাচনের দিন ভোট বর্জন করা ভালো হবে, নাকি আগের দিন বর্জন করলে ভালো হবে’।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে বিএনপি সমর্থিত মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের নির্বাচন বর্জন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, তাবিথ নির্বাচন থেকে সরে যেতে চায়নি, মওদুদ আহমদ তাকে নির্বাচন থেকে সরে যেতে বাধ্য করেছেন।

একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকার সমালোচনা করে তোফায়েল আরও বলেন, তিনি সিটিতে ২৭ শ’ কেন্দ্রের মধ্যে মাত্র ৫৫টি কেন্দ্রে গণ্ডগোল হয়েছে। যে কোনো নির্বাচনেই এমন সামান্য ঘটনা ঘটে থাকে।

দেশের প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ-চীন-ইন্ডিয়া-মায়ানমার করিডোরের গুরুত্ব নিয়ে সভায় আলোচনা করা হয়।

সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন ও সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলিপ বড়ুয়া।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত মা মিংকিয়াং, বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের ডেপুটি হাইকমিশনার সন্দ্বীপ চক্রবর্তী, ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই-এর সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দীন আহমদ, সংসদ সদস্য গাজী গোলাম দস্তগীর এবং আদিবাসী গবেষক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক মেজবাহ কামাল।

 

BanglaNews24

print