‘বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও তার পুত্র তারেক রহমান আজও তাদের রাজনীতি পরিষ্কার করতে পারেনি। আর এ কারণেই বিএনপির এমন দৈন্যদশা। বিএনপির রাজনীতির চলমান ধারা অব্যাহত থাকলে আগামী ২০২০ সালের মধ্যে তারা (বিএনপি) বিলীন হয়ে যাবে।’ শুক্রবার রাজধানীর কাকরাইল ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউটে বঙ্গবন্ধু একাডেমির এক আলোচনায় এ শঙ্কা প্রকাশ করেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত। সুরঞ্জিত বলেন, ‘তারা (বিএনপি) মনে করে মুক্তিযুদ্ধও ঠিক, মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতাও ঠিক। এ নীতি অবলম্বন করে দক্ষিণ এশিয়ায় আর রাজনীতি করা যাবে না।’

 

সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর রায় প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন ‘এ রায়ের প্রেক্ষাপটে বিএনপি যে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে, তাতে পুরো জাতি হতাশ। বিএনপি বলছে, এই রায়ে সরকার রাজনৈতিক প্রতিহিংসার পরিচয় দিয়েছে। ১৯৭১ সালে বিএনপি ছিল না। ১৯৭১ সালে বিএনপির হয়ে সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরী যুদ্ধাপরাধ করেনি যে, সরকার প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়ে এ রায় দিয়েছে।’

 

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ় নেতৃত্বের কারণেই ৪৩ বছর পর যুদ্ধাপরাধের বিচার সম্পন্ন হচ্ছে। এ বিচার জাতির শাপমোচন করছে।’

 

সভায় প্রধান বক্তা ঢাকা-৭ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য হাজি সেলিম বলেন, ‘আগাম নির্বাচনের স্বপ্ন দেখে বিএনপি যে আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছে, তাতে কোনো লাভ হবে না। নির্বাচনের জন্য বিএনপিকে আগামী ২০১৯ সাল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।’
print