আটলান্টিক মহাসাগরে রাশিয়ার একটি সাবমেরিনকে শনাক্ত করেছে বলে দাবি করছে মার্কিন কর্মকর্তারা। মার্কিন গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের ধারণা পাশ্চাত্যের সঙ্গে সংঘর্ষ বাধলে আমেরিকা ও ইউরোপের মধ্যে সংযোগ স্থাপনকারী সাগরতলের ক্যাবলগুলো কেটে দিতে পারে রাশিয়া। উল্লেখযোগ্য সক্ষমতার অধিকারী রাশিয়ার সাবমেরিনগুলোর এ কাজ করতে পারে।

গত মাসে আটলান্টিক মহাসাগরে মার্কিন গোয়েন্দা উপগ্রহ, সাবমেরিন ও জঙ্গিবিমানের সাহায্যে রাশিয়ার একটি সাবমেরিনকে শনাক্ত করা হয়েছে বলে মার্কিন কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে জানিয়েছে সিএনএন। মার্কিন কর্মকর্তারা দাবি করছেন, রুশ সাবমেরিন ‘ইয়ান্তার’ পানির নীচ দিয়ে আটলান্টিক পাড়ি দিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলে টহল দিয়েছে। টহলের পুরো সময় জুড়ে রুশ সাবমেরিনটির গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করেছে বলে দাবি মার্কিন নৌবাহিনীর।

মার্কিন কর্মকর্তারা বলছেন, সাগরের নীচে স্থাপিত কমিউনিকেশন ক্যাবল কেটে দেয়ার ক্ষমতা রয়েছে ইয়ান্তারের। এসব ক্যাবল দিয়ে বিপুল পরিমাণ বাণিজ্যিক ও সামরিক ডাটা আদান-প্রদান হয়। এছাড়া, ইউরোপ ও আমেরিকার মধ্যে  ইন্টারনেট কানেকশনসহ অন্যান্য সব ধরনের যোগাযোগ ব্যবস্থা রক্ষিত হয় এসব কেবলের মাধ্যমে।

তবে মার্কিন কর্মকর্তাদের এ দাবি প্রত্যাখ্যান করে রাশিয়া বলেছে, ইয়ান্তার কোনো অবস্থায়ই গোয়েন্দা সাবমেরি নয়।

print