ঢাকা: কলোরাডোর পরিবার পরিকল্পনা ক্লিনিকে বন্দুক হামলায় তিনজন নিহত হওয়ার পর আবারো বন্দুক আইন কঠোর করার তাগিদ দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। শনিবার তিনি বিরক্তি প্রকাশ করে বলেছেন,‘যথেষ্ট হয়েছে, আর নয়’(এনাফ ইজ এনাফ)। শুক্রবার কলোরাডো অঙ্গরাজ্যের কলোরাডো স্প্রিং শহরের ‘প্লানড প্যারেন্টহুড’ নামের এক ক্লিনিকে হামলা চালায় এক বন্দুকধারী। ওই হামলায় এক পুলিশ এবং দুই বেসামরিক নাগরিক প্রাণ হারিয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছেন আরো ১১ জন।

বন্দুক হামলার পর প্রেসিডেন্ট ওবামা দেশে অস্ত্র আইন কঠোর করার তাগিদ দিয়ে বলেছেন,‘এনাফ ইন এনাফ’। তিনি বরাবরই প্রচলিত অস্ত্র আইন আরো কঠোর করার পক্ষে। কিন্তু কংগ্রেসের বিরোধিতার কারণে তা বাস্তবায়িত করা সম্ভব হচ্ছে না। শুক্রবারের হামলায় ক্ষোভ প্রকাশ করে ওবামা বলেছেন,‘আগ্নেয়াস্ত্রের সহজলভ্যতার কারণেই আমেরিকার সড়কগুলোতে এসব হামলার ঘটনা ঘটছে।’ এর আগেও বেশ কয়েকবার অস্ত্র আইন কঠোর করার উদ্যোগ নিয়েছিলেন ওবামা। কিন্তু এতে সফল না হওয়াকে তিনি তার প্রেসিডেন্ট সময়ের সবচেয়ে বড় হতাশা হিসেবে উল্লেখ করেছিলেন।

‘প্লান্ট পেরেন্টহুড’ নামের ওই ক্লিনিকটিতে গর্ভপাত করানো হত। সম্প্রতি গর্ভপাত বিরোধী একটি সংস্থা গোপনে এই ক্লিনিকের এক কর্মচারীর বক্তব্য রেকর্ড করার পরই ক্লিনিকটি নিয়ে শোরগোল শুরু হয়। ওই কর্মচারী গোপনে চিকিৎসা গবেষণার জন্য কিভাবে বন্ধ্যা ভ্রূণের টিস্যু সরবরাহ করা হয় সে বিষয়ে বক্তব্য রাখছিলেন। পুলিশের ধারণা, ওই ঘটনার জের ধরেই শুক্রবারের ওই হামলা চালান হয়েছে। যে কারণে ধরা পড়ার পর সন্দেহভাজন ওই হামলাকারী পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হওয়ার সময় বলেছিলেন,‘কোনো শিশুর দেহের অংশ নেই।’

print