আদিকাল থেকেই আমাদের দেশীয় রান্নায় জিরার ব্যবহার হয়ে আসছে। এটি শুধু আমাদের খাবারের স্বাদ মুখরোচক করে না, পাশাপাশি আমাদের স্বাস্থ্যেরও অনেক উপকার করে।

জিরায় যে পুষ্টিকর উপাদান রয়েছে তা ক্যান্সার, হাঁপানি এবং বদহজম দূর করতে সাহায্য করে। এখানে জিরার আরও উপকারের কথা বর্ণনা করা হল-

১. প্রতিদিন সকালে জিরা ভিজিয়ে সেই পানি পান করলে তা আমাদের হজমশক্তি বৃদ্ধি করবে। এটি বদহজম দূর করার কার্যকরী উপাদান।

২. জিরা আয়রনের একটি সমৃদ্ধ উৎস। গর্ভবতী মহিলাদের জন্য প্রতিদিন জিরা খাওয়া ভাল।

৩. জিরার বীজ ঠাণ্ডা ও হাঁপানি রোগের নির্মূলে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। এতে বিরোধী প্রদাহজনক এন্টি-ব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টি ফাংগাল বৈশিষ্ট্য বিদ্যামান। যা দ্রুত ঠাণ্ডাজনিত সমস্যা কমাতে সাহায্য করে।

৪. জিরা একটি প্রাকৃতিক জোলাপ হতে অনুমিত। যা কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতেও সাহায্য করে।

৫. জিরার পানি অর্থাৎ জিরা ভিজিয়ে রেখে সেই পানি ত্বকে ব্যবহার করলে ব্রণ নিরাময় হয়। এটি ব্রণ নিরাময়ের একটি প্রাকৃতিক প্রতিকার হিসাবে পরিচিত। নিয়মিত জিরাকে পানিতে ভিজিয়ে সেদ্ধ করে, সেই পানি ত্বকে লাগালে আপনি একটি পরিষ্কার ব্রণ মুক্ত ত্বক পাবেন।

সুতরাং, নিজেকে সুস্থ রাখার জন্য আপনার খাবারে জিরার ব্যবহার করুন।

print