ভান্ডারিয়া প্রতিনিধি : পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার ভান্ডারিয়া বন্দর বাজারে তুচ্ছ ঘটনায় কয়েক যুবক মিলে ছগীর কবিরাজ নামে এক তৈরী পোষাক বিক্রেতাকে কুপিয়ে জখম করেছে। আহত ব্যবসায়ী ছগীর কবিরাজকে প্রথমে ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আহত ব্যবসায়ীর ভাই জাকির কবিরাজ জানান, আমার ভাইয়ের ভান্ডারিয়া বন্দরের হক মার্কেটে তাজরিয়ান ফ্যাশন নামে একটি তৈরী পোষাক বিক্রয়ের দোকান রয়েছে। কয়েকদিন আগে শাওন কাজী নামে এক যুবক আমার ভাইয়ের দোকান থেকে একটি প্যান্ট কিনে নেয়। বৃহস্পতিবার সকাল সারে এগারোটার দিকে শাওন ঐ প্যান্টটি নিয়ে আমার ভাইয়ের দোকানে এসে তা পাল্টে দিতে বলে। আমার ভাই ছগীর শাওনের ঐ প্যান্টটি পাল্টে দিতে অপারগতা জানালে শাওন ও তার সাথে থাকা যুবকদের সাথে আমার ভাইয়ের বাদানুবাদ হয়। একপর্যায়ে শাওন ফিরে গিয়ে সংগঠিত হয়ে এসে আমার ভাইকে কুপিয়ে মারাত্মক যখম করে। ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (টিএইচএ) শাহাদাত হোসেন হাজরা বলেন, আহত ছগীর কবিরাজের পিঠে ও পেটে যখম হয়েছে। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ভান্ডারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, ব্যবসায়ী ছগীর কাজীর উপর হামলার ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন। ইতিমধ্যে এ হামলার সাথে জড়িত শাওন কাজী ও সজিব ফকির নামে দু’জনকে আটক করা হয়েছে।

print