স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুরের সিকদার মল্লিক ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগ চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকরা বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থীর ৩ সমর্থককে কুপিয়ে গুরুত্বর জখম করেছে ।এ ঘটনায় ১ জন কর্মী নিখোঁজ আছে বলে দাবী করেছে আহতরা। বুধবার দুপুর ২টার দিকে সিকদার মল্লিক ইউপি কার্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হচ্ছে মিরাজ শেখ, রাজু শেখ ও নাদিম শেখ।
আহত মিরাজ সেখ জানান, বিএনপির সমর্থিক চেয়ারম্যান প্রার্থীর প্রচারনা শেষে দুপুরে তারা ৪ জন বাড়িতে ফেরার পথে ইউনিয়ন পরিষদের সামনে এলে আওয়ামীলীগ চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থক সফিক হাওলাদার, লিমন হাওলাদার, মাহবুব, জুয়েল, লায়েক ও বিপ্লব সহ কয়েক জন তাদের উপর হামলা চালায় এবং তাদের কুপিয়ে জখম করে ।এছাড়া তাদের সাথে থাকা জামিল খান খালে পড়ে যায়।
পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে এলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে সে সময় জামিল খানকে উদ্ধার করা যায়নি বলে আহতরা জানান।
বিএনপি সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুজ্জামান চাঁন জানান, প্রতিক বরাদ্দের আগে থেকেই আওয়মলীলীগ সমর্থিত প্রার্থী সহ তার সমর্থকরা আমার সমর্থকদের বাড়ী বাড়ী গিয়ে হুমকি দিয়ে আসছিল। আর বর্তমানে ইউনিয়নের কোথাও পোষ্টার টানাতে পারছি না । আওয়ামীলীগ প্রার্থী নিজে দাঁড়িয়ে থেকে সেই পোষ্টার খুলে ফেলছে আর এখনতো সমর্থকদের হত্যা করা জন্য কুপিয়ে জখম করেছে।
এ ব্যাপারে পিরোজপুর সদর থানার ওসি এস এম মাসুদুজ জামান জানান, হামলাকারীরা সবাই আওয়ামীলীগের চেয়রাম্যান প্রার্থীর সমর্থক এবং আহতরা বিএনপির সমর্থক হলেও তারা বহিরাগত । তবে নিখোঁজের ব্যাপারে তার কাছে কোন প্রকার তথ্য নেই ।

print