বাংলাদেশ ক্রিকেটের সূচনা লগ্ন থেকেই ওপেনার হিসেবে পরিচিত শাহরিয়ার নাফিস। তবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) নিজেদের প্রথম ম্যাচে পাঁচ নম্বরে ব্যাটিং করেছেন তিনি। তবে সেখানে ব্যাটিং করেও দারুণ ব্যাট করেছেন এ তারকা। আর এ পজিশনে ব্যাটিং করতে হতে পারে আগে থেকেই ভেবেছিলেন তিনি। তার মতে, ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত এ সংস্করণে অর্ডার তেমন প্রভাব ফেলে না। মনোযোগ ঠিক থাকলে এবং স্কিল থাকলে যেকোনো জায়গায় ভালো খেলা সম্ভব।

হঠাৎ করে নাফিসের ব্যাটিং অর্ডার এতো নিচে কেন নামলো স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন জেগেছে সবার মনে। সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্নও করা হলো তাকে। উত্তরে নাফিস বললেন, ‘গত বছর আমি যখন তিনটা ম্যাচ খেলে বাদ পরেছিলাম এরপর যখন আবার সুযোগ পাই তখন ওই পজিশনেই খেলেছিলাম। তখন বুঝেছি আমাকে যেকোনো জায়গায় খেলার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। তবে আমার কাছে মনে হয় টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে অর্ডারটা কিছু না যদি মনোযোগ ঠিক থাকে। স্কিল থাকলে তেমন সমস্যা হয় না।’

এবারের আসরের জন্য অনেক আগে থেকেই অনুশীলন করা শুরু করে বরিশাল। অনুশীলনের শুরু থেকেই বুঝেছেন ব্যাটিং অর্ডার হয়তো নিচের দিকেই আসতে পারে তার, ‘আমাকে দলের প্রয়োজনে যেকোনো জায়গায় খেলতে হতে পারে। আমি সেটাই অনুশীলন করেছি। আগে থেকেই ভেবেছিলাম, তাই প্রস্তুতি ছিল। বিপিএলের শুরুতে আমরা যখন ক্যাম্প করেছিলাম তখন এটা ভেবেছিলাম আমাকে হয়তো নিচের দিকে ব্যাটিং করতে হতে পারে। আলহামদুলিল্লাহ তেমন অস্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি নাই।’

এদিন দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৫ রানের ইনিংস খেলেন নাফিস। গত বছর থেকেই ঘরোয়া ক্রিকেটে ধারাবাহিকভাবে রান করে আসছেন এ ক্রিকেটার। সে ধারায় এবার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে স্ট্যান্ডবাইয়ে আছেন তিনি। এটাকেই অনেক বড় মোটিভেশন ভাবছেন নাফিস।

‘গত তিন বছর আমি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কোনো সিস্টেমে ছিলাম না। তিন বছর পর এখানে এসেছি, ভালো সুবিধা, ভালো কোচিং স্টাফ, ভালো অনুশীলন সেশন পেয়েছি। তো এটা আমার জন্য প্লাস পয়েন্ট ছিল। এখন নিউজিল্যান্ড সিরিজের জন্য স্ট্যান্ডবাই হিসেবে আছি, এটা একটা বড় মোটিভেশন।’

print