নাজিরপুর প্রতিনিধি: পিরোজপুরের নাজিরপুরে কলেজ ছাত্র  কর্তৃক ৫ বছরের এক  শিশুকে ধর্ষনের চেষ্টা করা  হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার শাঁখারীকাঠী ইউনিয়নের বুড়িখালী গ্রামে। ধর্ষনের চেষ্টায় আহত ওই শিশুকে গতকাল শুক্রবার তার মা চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে   নিয়ে আসেন। এ সময় তিনি জানান,  তার ৫ বছরের কন্যা সহ ৪/৫ জন শিশু গত বুধবার বিকালে স্থাণীয়   শামসুল হক শেখের বাড়িতে কাঠ বাদাম কুড়াতে যায়। এ সময়    তার (শামসুল হক) পুত্র ও উপজেলার মাটিভাংগা ডিগ্রী কলেজের ছাত্র তাইজুল ইসলাম বাবু ওই শিশুকে  তার বাড়ির পাশের দক্ষিন মাথার বাগানে   ধরে নিয়ে ধর্ষনের চেষ্টায় যৌনাঙ্গে আঘাত করে।  এতে  শিশুটি  ব্যাথা পেয়ে নিজেকে রক্ষা করতে ওই বাবুকে চর-থাপ্পর মেরে নিজ বাড়িতে এসে মাকে জানায়। শিশুটির পিতা ঢাকায় থাকায়  তিনি (মা)  তাৎক্ষনিকভাবে বিষয়টি স্থানীয় ৪নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য  হুমায়ুন কবিরকে জানান। কিন্তু  তিনি ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে উপজেলার দীঘিরজান বাজারের পল্লী চিকিৎসক শহিদুল ইসলামের  কাছে পাঠিয়ে ক্ষতস্থানে লাঠির আঘাত লেগেছে মর্মে চিকিৎসা দিতে বলেন। ডাক্তার  সে অনুযায়ী চিকিৎসা দিলেও গত বৃহস্পতিবার রাতে তার কন্যা ক্ষতস্থানে প্রচন্ড ব্যাথা অনুভাব করে সারা রাত চিৎকার করে। তাই  তাকে চিকিৎসার জন্য আজ (শুক্রবার) হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে।   এ ব্যাপারে থানা পুলিশের অফিসার ইন চার্জ এর দায়িত্ব থাকা এসআই  মো. মাহাবুব  হোসেন জানান, ঘটনাটি শুনে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  গিয়ে শিশুটির সাথে কথা বলে   তার মাকে দিয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

print