ঢাকা: মিরপুর টেস্টের দ্বিতীয় দিনে শুরু থেকেই অস্ট্রেলিয়াকে চেপে ধরেছে বাংলাদেশ। সাকিব আল হাসান এবং মেহেদী হাসান মিরাজের স্পিন যাদুতে রীতিমত নাজেহাল অসি ব্যাটসম্যানরা। আর তাতে দ্বিতীয় দিনেই চালকের আসনে বসেছে টাইগাররা। প্রথমবারের মতো অসিদের বিপক্ষে লিড নিতে যাচ্ছে মুশফিকরা। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৮  উইকেট হারিয়ে ১৪৪ রান তুলেছে অসিরা। অ্যাস্টন এগার ২ এবং প্যাট কামিন্স ০ রান নিয়ে অপরাজিত আছেন।

প্রথম দিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসে ক্রিজে থাকা অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথকে বড় হুমকি মনে করেছিলেন সাকিব আল হাসান। আর স্মিথ যে মানের ব্যাটসম্যান তাতে সাকিবের এই ধারণা অমূলক নয়। কিন্তু দ্বিতীয় দিন সকালেই স্মিথকে ফিরিয়ে দিলেন মেহেদি হাসান মিরাজ। তাকে কিছুটা ডাউন দ্য উইকেটে খেলতে গিয়েছিলেন স্মিথ। আর তাতেই লাইন মিস করে বল আঘাত হানে স্ট্যাম্পে।

স্মিথকে মাত্র ৮ রানে ফিরিয়ে সকালে দারুন শুরু করেছে বাংলাদেশ। এরপর ম্যাট রেন শ ও পিটার হ্যান্ডসকম্ব কিছুটা প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেন। ১০২ রানে এই জুটি ভাঙেন তাইজুল ইসলাম। এলবিডব্লুর ফাঁদে পড়েন হ্যান্ডকম্ব। ৬৭ বলে ৩৩ রান করেন তিনি।

এরপর ব্যাট করতে নামেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। তাকে নিয়ে বিপর্যয় সামাল দেয়ার চেষ্টা করছিলেন দারুণ খেলতে থাকা রেনশ। তবে তা আর হয়ে ওঠেনি। হতে দেননি সাকিব। স্লিপে সৌম্য সরকারের ক্যাচ বানিয়ে রেনশকে সাজঘরে ফেরত পাঠান তিনি। ১১৭ রানে ফেরার সময় তাঁর নামের পাশে যুক্ত হয়েছে ৪৫ রান। এই রান তিনি করেছেন ৯৪ বলে পাঁচ চারের সাহায্যে।

অস্ট্রেলিয়া মধ্যাহ্ন বিরতিতে যাওয়ার আগে ৬ উইকেটে ১২৩ রান তুলেছিল  অস্ট্রেলিয়া। বিরতির পর ব্যাটিংয়ে নেমেই ফের ধাক্কা খায় অস্ট্রেলিয়া। বিরতির পর প্রথম ওভারের শেষ বলে ওয়েডকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন মিরাজ। আর তাতে করে অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটিং লাইনের লেজ বেরিয়ে পড়ে।

এরপর অ্যাগারকে নিয়ে আক্রমণাত্মক খেলার কৌশল বেছে নেন ম্যাক্সওয়েল। তবে এর মূল্যও দিতে হয় তাকে। দলীয় ১৪৪ রানের মাথায় সাকিবের বলে ক্রিজ ছেড়ে বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে স্টাম্পিংয়ের ফাঁদে পড়েন ম্যাক্সওয়েল। ফলে বাংলাদেশের লিড নেয়ার স্বপ্ন আরো উজ্জ্বল হয়।

আগের দিন ১৮ রান তুলতেই অস্ট্রেলিয়া হারিয়ে বসে ৩ উইকেট। মিরাজ আগের দিন ফিরিয়েছিলেন ডেভিড ওয়ার্নারকে। এদিন ফেরালেন স্মিথকে। দুটোই দামি উইকেট। তাইজুল ফেরালেন হ্যান্ডসকম্বকে। সাকিব লাঞ্চের আগে তুলে নেন থিতু হওয়া রেনশ’র উইকেট।

রোববার টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবালের জোড়া অর্ধশতকে নিজেদের প্রথম ইনিংসে সবগুলো উইকেট হারিয়ে ২৬০ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় বাংলাদেশ। সাকিব দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৮৪ রান করেন সাকিব। তামিম করেন ৭১ রান।

অস্ট্রেলিয়ার প্যাট কামিন্স, ন্যাথান লায়ন ও অ্যাস্টন এগার তিনটি করে উইকেট নেন।

print