স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুরে নিখোঁজের ৭ দিন পর এক বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুরে সদর উপজেলার হুলারহাটের কঁচা নদী থেকে এ লাশ উদ্ধার করা হয় বলে জানান পিরোজপুর সদর থানার ওসি মো: মাসুমুর রহমান বিশ্বাস।
উদ্ধারকৃত লাশটি পিরোজপুর সদর উপজেলার রানীপুর গ্রামের মৃত হাসেম আলী শেখের পুত্র মোফাজ্জল আলী শেখে (৬৫)র বলে জানা গেছে। সে হুলারহাট বন্দরে ও ঢাকাগামী লঞ্চে বাদাম-বুট বিক্রয় করতো বলে জানায় তার পুত্র  পান্নু  শেখ
মোফাজ্জলের পুত্র পান্নু শেখ জানান, তার পিতা মোফাজ্জেল আলী গত ২৩ অক্টোবর হুলারহাট বন্দরে বাদাম-বুট বিক্রয় করতে বাড়ী থেকে বের হয়ে আর বাড়ি ফিরে যায়নি। অনেক খোঁজা-খুজির পরে তাকে না  পেয়ে গত ২৬ অক্টোবর নিঁেখাজের বিষয়ে পিরোজপুর সদর থানায় একটি সাধারণ ডাইরী করা হয়। পরে আজ সকালে কঁচা নদীতে লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয় লোকজন তাদের খবর দিলে পরনের জামা-কাপড় দেখে তারা চিনতে পারে যে এটা তার বাবা মোফাজ্জল আলী শেখের মরদেহ।
পিরোজপুর সদর থানার ওসি মো: মাসুমুর রহমান বিশ্বাস জানান, পুলিশ খবর পেয়ে  হুলারহাটের ট্রলার ঘাট এলাকা থেকে অজ্ঞাত পরিচয়ে এক বৃদ্ধর লাশ উদ্ধার করে। কয়েক দিন ধরে লাশটি নদীতে থাকায় তার মুখমন্ডল ঠিকমত চেনা যাচ্ছিল না। পরে রানীপুর এলাকার পান্নু শেখ লাশটির পরনের জামা-কাপড় দেখে সনাক্ত করে লাশটি তার নিঁখোজ পিতার। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে এবং এ বিষয়ে আইনি পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে বলে জানান ওসি।
ওসি মাসুমুর রহমান আরো জানান,যেহেতু লাশটির চেহারা চেনা যাচ্ছেনা তাই ডিএনএ পরীক্ষার পরে বলা যাবে লাশটি মোফাজ্জল আলী শেখের কিনা ।

print