স্টাফ রিপোর্টার : আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির আইনবিষয়ক সম্পাদক শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, ‘শেখ হাসিনা দুর্বল হলে মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশ দুর্বল হবে। এ বিষয়ে আমাদের সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।’ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির আইনবিষয়ক সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় নাজিরপুরে বৃহস্পতিবার বিকালে পিরোজপুর জেলার নাজিরপুর উপজেলার গাওখালী ইউনিয়নের গাওখালী স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে তাকে দেওয়া এক গণসংবর্ধনায় শ ম রেজাউল করিম এ কথা বলেন।
তিনি আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার পরিবারের সদস্যরা ক্ষমতাকে মানুষের সেবা করার দায়িত্ব মনে করেন। ক্ষমতাকে তারা মানুষের মাঝে নিজেকে উৎসর্গ করার দায়িত্ব মনে করেন।’
ওয়ান ইলেভেনের সময় শেখ হাসিনাকে স্লো পয়জনিংয়ের মাধ্যমে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল উল্লেখ করে রেজাউল করিম বলেন, ‘ওই সময় অনেকে শেখ হাসিনাকে রাজনীতি ছেড়ে দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছিল। কিন্তু তিনি তাদের বলেছিলেন, আমি বঙ্গবন্ধুর মেয়ে, মরতে হলে এখানেই মরব কিন্তু রাজনীতি ছাড়ব না। ২১ বছর তাকে রাজপথে থাকতে হয়েছে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনার জন্য। ২০ বার তাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল। বাংলার মানুষের দোয়া ও ভালবাসায় তিনি বেঁচে আছেন। শেখ হাসিনা ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে কোনও দুর্নীতির অভিযোগ নেই।’ জামায়াত-বিএনপি এখন জনগণের দুশমন। জামায়াত-বিএনপি আবার বাঁকা পথে ক্ষমতায় আসতে সব রকম চেষ্টা চালাচ্ছে। আদালতে স্বাক্ষী-প্রমানে শাস্তি নিশ্চিত বুঝতে পেরে খালেদা জিয়া ও তার দোসরা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার এবং দেশে পরিকল্পিত নৈরাজ্য সৃষ্টির জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে। বিমানের একজন পাইলটকে দিয়ে শীর্ষ নেতৃবৃন্দকে হত্যার ষড়যন্ত্র করেছিল। সড়ক পথে কক্সবাজারে যাওয়ার নামে সাংবাদিকদের গাড়ি বহরে হামলা চালিয়েছিল। লন্ডনে বসে খালেদা জিয়া ও তার ছেলে দেশকে অস্থিতিশীল করার নীলনক্সা করেছে।
একই অনুষ্ঠানে পিরোজপুর জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও পৌর মেয়র আলহাজ্ব মো: হাবিবুর রহমান মালেক বলেছেন, দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা চলমান রাখতে আওয়ামীলীগের বিকল্প নাই। তাই আগামী সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রার্থীকে জয়ী করে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আবারো আরো শক্তিশালী করতে হবে। যারা দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করছে তাদের থেকে দুরে থাকতে হবে।
আলহাজ্ব মো: হাবিবুর রহমান মালেক পিরোজপুর জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি হওয়ায় তাকে দেয়া গণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
নাজিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ ও অংগ সংগঠনের আয়োজনে এ গণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে নাজিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এস এম বেলায়েত হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. এম এ হাকিম হাওলাদার।
এছাড়া অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইসাহাক আলী খান পান্না, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি শাহজাহান খান তালুকদার, বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা মজিবুর রহমান শামিম, জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জিয়াউল আহসান গাজী, দপ্তর সম্পাদক শেখ ফিরোজ আহমেদ, জেলা আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা অমুল্য রঞ্জন হাওলাদার, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মতিউর রহমান সরদার, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি এ্যাড. খান মো. আলাউদ্দিন, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা নকিব, নাজিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশারেফ হোসেন খান, জেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রফিকুল ইসলাম মাসুদ,ছাত্রলীগ জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক খায়রুল ইসলাম মিঠু সহ জেলা ও উপজেলার আওয়ামীলীগ ও অংগ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

print