স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুর জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব মো: হাবিবুর রহমান মালেক বলেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে সারা দেশের মানুষ যখন স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল এবং যুদ্ধের শেষ মূহুর্তে, তখন পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীরা বাঙ্গালী জাতিকে মেধা শূন্য করার লক্ষ্যে তারা এ হত্যাকান্ড করেছিল। চুড়ান্ত বিজয়ের প্রাক্কালে পাকবাহিনী বুদ্ধিজীবীদের হত্যার মাধ্যমে আমাদের মেধাহীন করার যে ষড়যন্ত্র করেছিল তারা তা পারেনি। পৃথিবীর ইতিহাসে নির্মম হত্যাকা-ের পরেও আমরা ঘুরে দাঁড়িয়েছি, বারবার ঘুরে দাঁড়াবো। চুড়ান্ত বিজয়ের মধ্য দিয়ে প্রমানিত হয়েছে বাঙ্গালী জাতি কখনো মাথা নত করেনা। তিনি বৃহস্পতিবার জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে জেলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালন উপলক্ষে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য এ কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, বাঙ্গালী জাতি বীরের জাতি, তাই আমরা সব কিছু হারিয়েও আজকে উন্নয়নের দিকে ধাপিত হতে যাচ্ছি। আমাদের নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়ন হতে যাচ্ছে। আগামী ২০২১ সালের মধ্যে আমরা ভিশন-২০২১ মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত হতে যাচ্ছি।
পিরোজপুর জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি শাহজাহান খান তালুকদার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, পিরোজপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট এম এ হামিক হাওলাদার। এছাড়া সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, পিরোজপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জিয়াউল আহসান গাজী, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সরদার মতিউর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক এ্যাড খান মোঃ আলাউদ্দিন, জেলা আওয়ামীলীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক গৌতম নারায়ন রায় চৌধুরী, সদর উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান রেজাউল করিম মন্টু, জেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক জিয়াউল আহসান জিয়া, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য ও সরকারী সোহরাওয়ার্দী কলেজের সাবেক ভিপি মাসুদ আহম্মেদ রানা,সরকারী সোহরাওয়ার্দী কলেজের সাবেক ভিপি ফয়সাল মাহবুব শুভ, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক খাইরুল ইসলাম মিঠু, জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সরকারী সোহরাওয়ার্দী কলেজের ভিপি এস এম বায়েজিদ হোসেন। সভা পরিচালনা করেন জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক শেখ ফিরোজ আহম্মদ। সভা শেষে শহীদদের রুহুমে মাগফিরাত কামনায় দোয়া-মোনাজাত করা হয়। দোয়া-মোনাজাত পরিচালনা করেন পৌর কবরস্থান জামে মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মোঃ মিজানুর রহমান।

print