স্টাফ রিপোর্টার: পিরোজপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজার শংকর কুমার কর এর বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে ক্ষমতার অপব্যবহার ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এক অভিযোগে জানা গেছে, পিরোজপুর জেলার নেছারাবাদ উপজেলার গুয়ারেখা ইউনিয়নের গাজিয়া গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক পিযুস কান্তি মন্ডলের ঘরের বিদ্যুৎ সংযোগটি কোন কারণ দর্শানো নোটিশ ছাড়াই ব্যক্তিগত ক্ষমতার অপব্যবহার করে বিচ্ছিন্ন করে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষয়টি গ্রাহক পিযুস কান্তি পিরোজপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির অফিসে এসে বিভিন্ন দপ্তরে যোগাযোগ করেও প্রথমে কোন কারণ জানতে পারেনি। তবে পরে অফিস সুত্রে জানতে পারে অফিস জিএমএর এক আত্মীয়ের সুপারিশে এ কান্ড সে ঘটিয়েছে। পিযুস কান্তি মন্ডল জানায়, তার ঘরের উপর থেকে স্থানীয় নৃপন মন্ডল নামক এক ব্যক্তির বাড়িতে পল্লী বিদ্যুতের সংযোগ দেয়ার জন্য বিদ্যুতের লাইন স্থাপন করা শুরু করলে দুর্ঘটনার আশঙ্কা জানিয়ে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে তিনি জিএম বরাবরে সংযোগটি তার বাড়ির ঘরের উপর থেকে না নিয়ে বিকল্প অবস্থায় নেয়ার জন্য আবেদন করে। এঘটনায় জিএম শংকর কুমার কর আবেদনটি পাওয়ার পরে প্রথমে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে বলে জানান। তবে কয়েকদিন পরেই সকলের অজান্তে হঠাৎ করে তার বাড়ির বিদ্যুৎ সংযোগটি কোন কারণ ছাড়াই বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়। অভিযোগকারী আরও জানান, স্থানীয় এক ব্যক্তি জিএম এর আত্মীয় হওয়ায় তার সুপারিশেই বাড়ির উপর থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ না যেতে দেয়ায় তিনি তার ক্ষমতার অপব্যবহার করে তার বাড়ির বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন। তবে অভিযোগের ব্যাপারে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জিএম শংকর কুমার করের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

print