স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুর জেলার নাজিরপুর উপজেলার শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নে নির্বাচনের বিরোধের জেড়ে প্রতিপক্ষের দেয়া আগুনে পুড়ে গেছে বসতঘর ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। বুধবার দিবাগত গভীর রাতে নাজিরপুর উপজেলার শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নের উদয়তারা গ্রামের লাল মিয়া বেপারীর বাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় প্রায় ২০ লক্ষ টাকা ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে বলে জানান ভুক্তভোগিরা।
লাল মিয়ার স্ত্রী কুনসুম বেগম জানান, গত ইউপি নির্বাচনে তারা বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান উত্তম কুমার মৈত্রর পক্ষে নৌকার মার্কার সমর্থক ছিল। তখন থেকে নৌকা মার্কার বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকরা তাদের নানা ভাবে ক্ষতি করার সহ এলাকা ছাড়া করার হুমকি দিয়ে আসছিল। এরই ধারাবাহিকতায় গত বুধবার দিবাগত রাতে স্থানীয় প্রতিপক্ষরা তাদের বসতবাড়ি ও বাড়ির সামনে দোকানে আগুন লাগিয়ে দেয়। এতে করে তাদের ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানে ভিতরে থাকা মালামাল, টিভি, ফ্রিজ, বিক্রয় জন্য দেকানে থাকা কাপড় ও বসত বাড়ির পিছনে সুপড়ির আড়তে থাকা সুপাড়ি সহ বমত ঘরের সকল মালামাল পুড়ে যায়। এতে করে তাদের কমপক্ষে ২০ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে।
লাল মিয়ার ভাই মনিরুল বেপারী জানান, রাতে যখন আগুন লাগে তখন আগুনে নিভতে এসে তার ভাই ইব্রাহিম দেখে যে স্থানীয় এলাকার তাদের প্রতিপক্ষ আরেফিন,আজিজুল, রবিউল, অঞ্জন, অধির বড়াল, সহ স্থানীয় কয়েকজন দৌড়ে পালিয়ে যাচ্ছে। এ সময় ইব্রাহিম দোকান ঘরের কাছ থেকে একটি কেরসিন সহ বোতল উদ্ধার করে। যা পরে পুলিশকে দেয়া হয়েছে। পরে স্থানীয়রা আগুন নিভানোর চেষ্টা করলেও তা নিয়ন্ত্রনে আনতে পারেনি।
শ্রীরামকাঠী ইউপি চেয়ারম্যান উত্তম কুমার মৈত্র জানান, লাল মিয়া ও তার পরিবারের অন্য সদস্যরা নৌকার পক্ষে কাজ করেছে। তখন থেকেই বিরোধী পক্ষ তাদের নানা ভাবে হুমকি দিয়ে আসছিল।
নাজিরপুর থানার ওসি মো: হাবিবুর রহমান জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়েল করা হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

print