সুস্থ থাকতে হলে প্রতিদিন এক কোয়া কাঁচা রসুন খেতে পারেন। সকালে খালি পেটে খেতে হবে এমন নয়। বিকাল অথবা দুপুরে বা রাতেও খেতে পারেন। যদি এমনি খেতে অসুবিধে হয় তাহলে ধনেপাতার সঙ্গে বেটে নিতে পারেন। নারকেল, বাকচুবাটা ও দইয়ে মিশিয়েও খেতে পারেন।

খ্রিস্টপূর্ব ১৫০০ শতকে চীন ও ভারতে রক্ত পাতলা রাখার জন্য এর প্রচলন ছিল। আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানের জনক হিপোক্রেটিস একে ব্যবহার করেছিলেন সারভাইকাল ক্যান্সারের চিকিৎসায়।

লুই পাস্তুর এর অ্যান্টিফাংগাল ও অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল গুণের খবর জানান। সময়ের সঙ্গে আরও উপকারের কথা জানা গিয়েছে। আধুনিক বিজ্ঞানীরা জানালেন, হৃদরোগ প্রতিরোধে এর ভূমিকার কথা। ইউনিভার্সিটি অব কানেক্টিকাট স্কুল অব মেডিসিনের কার্ডিওভাসকুলার রিসার্চ টিমের মতে, কাঁচা রসুন খেলে হার্ট অনেক বেশি সুস্থ থাকে।

আসুন জেনে নেই কেন প্রতিদিন এক কোয়া রসুন খাবেন

রক্তচাপ কমায়

রসুন রক্তচাপ কমায়। চার কোয়া করে খেলে সে রক্তচাপ কমানোর ওষুধের সঙ্গেও পাল্লা দিতে পারে কিছু ক্ষেত্রে।

কোলেস্টেরল

টোটাল এবং এলডিএল কোলেস্টেরল প্রায় ১০–১৫ শতাংশ কমে যায়। তবে উপকারি কোলেস্টেরল বা এইচডিএল বাড়াতে ও ট্রাইগ্লিসারাইড কমাতে এর কোনও ভূমিকা নেই।

র‌্যাডিক্যালস

বিপাকীয় ক্রিয়া ও পরিবেশ দূষণের ফলে যে ফ্রি র‌্যাডিক্যালস তৈরি হয় তা হার্ট তথা সমস্ত শরীরের জন্য ক্ষতিকর। রসুনের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সেই ক্ষতি খুব ভাল ভাবে ঠেকাতে পারে।

বাড়ে আয়ু

অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের দৌলতে কমে অ্যালঝাইমার ও ডিমেনসিয়ার প্রকোপ। সংক্রমণজনিত অসুখবিসুখ কম হয়। বাড়ে আয়ু।

হাড়ের স্বাস্থ্য

ইস্ট্রোজেন লেভেল বেড়ে হাড়ের স্বাস্থ্য ভাল হয় মেয়েদের। তবে এ নিয়ে শেষ কথা বলার সময় এখনও আসেনি। লেড টক্সিসিটি কমাতে কাজে লাগে। সবচেয়ে ভাল ফল পেতে গেলে সাপলিমেন্ট না খেয়ে খেতে হবে কাঁচা রসুন।

print