পৃথিবীর সবচেয়ে সফল ও সম্পদশালী দেশ হিসেবে পরিচিতি থাকলেও যুক্তরাষ্ট্রের চার কোটি মানুষ দারিদ্র্যের মধ্যে বসবাস করছেন। জাতিসংঘের চরম দরিদ্র ও মানবাধিকারবিষয়ক বিশেষ র‌্যাপোর্টার ফিলিপ আলস্টোন বলেন, এক কোটি ৮৫ লাখ লোক চরম দরিদ্র্যের মধ্যে বাস করছেন। ৩৫ লাখ লোক তৃতীয় বিশ্বের মানুষের মতো অভাব-অনাটনে দিন পার করছেন।-খবর আরটি অনলাইনের।

রিড্যাক্টেড টুনাইট টেলিভিশন শোয়ের হোস্ট জন এফ ওডনেল বলেন, চার কোটি মানুষ অব্যাহত দরিদ্রের মধ্যে রয়েছেন। যেটি ফ্রান্সের জনসংখ্যার কাছাকাছি। বিপুলসংখ্যক মার্কিনি আজ দরিদ্র্যের মধ্যে বাস করছেন। ফিলিপ অ্যালস্টোন তার প্রতিবেদনে লিখেছেন-যুক্তরাষ্ট্র পৃথিবীর সবচেয়ে শক্তিশালী ও০ প্রযুক্তিগত উন্নত হলেও অধিকাংশ ইউরোপীয় দেশের তুলনায় তাদের বৈষম্য প্রকট।

তিনি বলেন, অন্যান্য ধনী গণতান্ত্রিক দেশের তুলনায় তারা কম বাঁচেন এবং তাদের ভেতর অসুস্থতার সংখ্যাও বেশি। অথচ বিশ্বের দুই হাজার ২০৮ বিলিয়নিয়ারের মধ্যে ২৫ শতাংশ যুক্তরাষ্ট্রে বাস করেন। ওডনেল বলেন, এটি আমার কাছে খুবই বেদনাদায়ক মনে হয়েছে। কারণ আমি সবসময় বলে আসছি, যুক্তরাষ্ট্র হচ্ছে- পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী দেশ। কিন্তু কেউ আমাকে বলেনি জনগণকে দরিদ্রের মধ্যে রেখেই আমেরিকা সবচেয়ে ধনী দেশ।

print