স্টাফ রিপোর্টার :
পিরোজপুর জেলা কৃষকদল সভাপতি গাজী সালাউদ্দিন হত্যা মামলার আসামী হাসান আল মামুন কে সভাপতি এবং ডাকাতি মামলার আসামী বদিউজ্জামান শেখ রুবেল কে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেছে কমিটির অন্য জেলা নেতৃবৃন্দ।
সোমবার দুপুরে পিরোজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলন করেন সদ্য ঘোষিত জেলা ছাত্রদল কমিটির সিনি: সহ-সভাপতি মো: তানজিদ হাসান শাওন সহ-সভাপতি ইমরান আহম্মেদ সজিব, সহ-সভাপতি খায়রুল ইসলাম বাবু, সহ-সভাপতি আতিকুর রহমান পারভেজ ও সদ্য বিলুপ্ত জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক এমদাদুল হক মাসুদ।
সংবাদ সম্মেলণে অভিযোগ, বর্তমান ঘোষিত সভাপতি হাসান আল মামুন জেলা কৃষকদলের সভাপতি গাজী সালাউদ্দিন হত্যা মামলার চার্জসীট ভুক্ত আসামী এবং ১/১১র পর পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সহ ছাত্রলীগ নেতাদের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রাখতো। এছাড়া বর্তমান ঘোষিত জেলা ছাত্র দলের সাধারণ সম্পাদক বদিউজ্জামান শেখ রুবেল একজন বিবাহিত ও স্কুলে পড়া অবস্থায় যিনি অসদাচরনের দায়ে স্কুল থেকে বহিস্কার হন এবং পরিবর্তীতে সে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীণ এইচএসসি পরীক্ষায় অকৃতকার্য। এ ছাড়াও বদিউজ্জামানশেখ রুবেলের নামে থানায় মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে মাদকের মামলা ও ডাকাতির মামলা সহ বিভিন্ন মামলা আছে।
বর্তমান ঘোষিত কমিটির সিনিয়র সহ সভাপতি তানজিদ হাসান শাওন, সহ-সভাপতি ইমরান আহম্মেদ সজিব, সহ-সভাপতি খায়রুল ইসলাম বাবু, ও সহ-সভাপতি আতিকুর রহমান পারভেজ বলেন ত্যাগি নেতাদের বঞ্চিত করে যে কমিটি ঘোষনা করা হয়েছে তা প্রত্যাখ্যান করছি। তারা বলেন, এই কমিটি বাতিল করা নাহলে তারা এই কমিটি থেকে পদত্যাগ করার ঘোষনা দেন।
এ সময় উপস্থিত জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক শেখ শহিদুল্লাহ শহীদ বলেন, ছাত্র দলের এ বক্তব্য যৌক্তিক। পদ বঞ্চিত নেতারা বর্তমান ঘোষিত নেতাদের চেয়ে অনেক যোগ্য।
এ বিষয়ে জেলা বিএনপির সভাপতি গাজী নুরুজ্জামান বাবুল জানান, তিনি এই কমিটির বিষয়ে কিছুই জানেন না। কেন্দ্রীয় ছাত্র দলের কোন নেতৃবৃন্দ এ কমিটি ঘোষনা করার আগে তার সাথে কোন আলাপ-আলোচনা করেনি। এ কমিটিতে জেলা ছাত্রদলের যে সকল নেতৃবৃন্দ বিগত দিনের আন্দোলনে রাজপথে থেকেছে তাদের মূল্যায়ণ করা হয়নি।

print