স্টাফ রিপোর্টার: আসন্ন পবিত্র ঈদ উল আযহা উপলক্ষে পিরোজপুর জেলা ব্যবসায়ী সমিতি, জেলা বাস ও মিনিবাস মালিক সমিতি ও কোরবানীর পশুরহাট হাট ইজারা কমিটির সাথে মতবিনিময় সভা করেছে জেলা পুলিশ প্রশাসন। বৃহস্পতিবার পুলিশ সুপার কার্যালয় মিলনায়তনে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সালাম কবিরের সভাপতিত্বে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোল্লা আজাদ হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আহমাদ মাঈনুল হাসান, জেলার বিভিন্ন থানার অফিসার ইনর্চাজবৃন্দ, জেলা ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আতাউর রহমান শেখ আলম, পিরোজপুর জেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও দি পিরোজপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র পরিচালক কে এম মোস্তাফিজুর রহমান বিপ্লব, জেলা ব্যবসায়ী সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মজনু তালুকদার, কোরবানীর পশুরহাট হাটের ইজারাদার আজাদ আল শুভ সহ জেলা ব্যবসায়ী সমিতি, জেলা বাস-মিনিবাস মালিক সমিতি ও কোরবানীর পশুরহাট হাট ইজারাদার বৃন্দ।
মতবিনিময় সভায় পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সালাম কবির বলেন, কোরবানির ঈদ অনেক বেশি চ্যালেঞ্জিং কারন এ সময় মলম পাটি, চোর বাটপাররা , দালালরা যাতে গরু ব্যবসায়ীদের টাকা পঁয়শা নিয়ে নিতে না পারে এবং কোন ধরনের হয়রানির স্বীকার না হয় সে দিকে ইজারা হাট কমিটি ও পাশা পাশি পিরোজপুর জেলা পুলিশ তথা আইন শৃংঙ্খলা বাহিনী সর্বাত্তক সজাগ দৃস্টি থাকবে। কোন গরু ব্যবসায়ী যদি মলম পাটি বা দালালদের খপ্পরে পরে তা হলে অবশ্যই থানা পুলিশ ও নিকটতম পুলিশ কন্ট্রোলরুম থাকবে সাথে সাথে তাদের কে অবশ্যই অবহিত করতে হবে। গরু ব্যবসায়ী অথাৎ ক্রেতা ও বিক্রেতা উভই সর্তক হতে হবে। জালনোট মেশিং এর মাধ্যমে জালনোট পরিক্ষা করে টাকা পঁয়শার লেনদেন করতে হবে।কোন ধরনের অপৃতকর ঘটনা ঘটলেই সাথে সাতে ডিউটিরত পুলিশ কে অথবা নিকটতম থানায় ফোন করতে হবে। খাবার হোটেলে দালাল ও মলম পাটি গরু ব্যবসায়ীদের নজর রেখে খবাররের সাথে বিষ অথবা অন্য কিছু মিশিয়ে দিয়ে টাকা পঁয়শা যাতে নিয়া নিতে না পারে সে দিকে বিশেষ নজর দারি থাকবে।

print