স্টাফ রিপোর্টার : ভারতীয় হাই কমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা বলেছেন ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে ভারত বাংলাদেশের জনগণের সাথে ছিল ভবিষ্যতেই একই ভাবে পাশে থাকবে। মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে ভারতীয় সৈনিকরা এক সাথে যুদ্ধ করেছিলো। একই সাথে প্রান দিয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ও ইন্দিরা গান্ধী সু-সম্পর্কের যে বীজ বপন করেছিলেন বর্তমান বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নেতৃত্বে সে সম্পর্ক অটুট রয়েছে। ভারত সুময়ে-দুসময়ে বাংলাদেশের জনগনের পাশে থাকবে। তিনি আজ রোববার সকালে স্বরূপকাঠির কুড়িয়ানা কবিগুরু রবীন্দ্র নাথ কলেজে এক সুধিসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

কলেজ ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি এ্যাডভোকেট কানাই লাল বিশ্বাসের সভাপতিত্বে এছাড়াও বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো: মোস্তাফিজুর রহমান, শের-ই-বাংলা ফাউন্ডেশনের সভাপতি ফাইয়াজুল হক রাজু, হিন্দু ধর্শীয় কল্যান ট্রাষ্টের ট্রাষ্টি অধ্যক্ষ বিপুল বিহারী হালদার, ইউপি চেয়ারম্যান শেখর কুমার সিকদার, উপাধ্যক্ষ সঞ্জিব কুমার হালদার প্রমুখ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, তার সফরসঙ্গী ভারতীয় দূতাবাসের ফাস্ট সেক্রেটারী রাজেশ উকে, নবনিতা চক্রবর্তী, প্রেস এ্যাটাস রঞ্জন মন্ডল, স্বরূপকাঠির ইউএনও আবু সাঈদ, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (স্বরূপকাঠি-কাউখালী সার্কেল) কাজী শাহ নেওয়াজ, নেছারাবাদ থানার ওসি কে এম তারিকুল ইসলাম।

হাই কমিমনার কলেজে শিক্ষাবৃত্তি চালুর ঘোষনা দেন এবং কলেজ পাঠাগারে বেশ কিছু বই আনুদান হিসেবে প্রদান করেন। এর আগে হাই কমিমনার আটঘড় কুড়িয়ানার আদমকাঠি এলাকায় পেয়ারা বাগানসহ ভাসমান কৃষি ঐতিহ্য পরিদর্শন করেন।

print