মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি : মঠবাড়িয়া গুলিসাখালী ইউনিয়নের দক্ষিণ কবুতরখালী গ্রামের তিন কিলোমিটার সড়কের নির্মাণ কাজ উদ্বোধনের পর নির্মাণ কাজ সম্পন্ন না করে কাজ ফেলে রাখা ও দ্রুত নির্মানের দাবীতে মানববন্ধন করেছে ভূক্তভোগি গ্রামবাসি। মঙ্গলবার বিকেলে সংশ্লিষ্ট গ্রামবাসি দক্ষিণ কবুতরখালী গ্রামের বেহাল সড়কের ওপর ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করে দ্রুত বেহাল সড়ক পাকা করণের দাবি জানান।
শেষে স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. আলাউদ্দিন এর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, স্থানীয় মাওলানা মো. আবু তাহের, ইউনুস আলী, মধূ তালুকদার, আলতাফ হোসেন পেয়াদা প্রমূখ।
বক্তরা অভিযোগ করেন, এলজিইডির আওতাধিন মঠবাড়িয়া উপজেলার গুলিসাখালী ভায়া বান্ধবপাড়া এর দক্ষিণ কবুতরখালী গ্রামের তিন কিলোমিটার সড়ক (ইট সোলিং) ও সড়ক ও কালভার্ট নিমাণ প্রকল্প অনুমোদিত হয়। দরপত্র আহ্বানের পর সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান তিন কিলোমিটার সড়কের মাত্র এক কিলোমিটার অংশ দায়সারা ভাবে কাজ করে বাকি দুই কিলোমিটার সড়ক ও দুইটি কালভার্ট নির্মাণ কাজ ফেলে রেখে চলে যায়। এতে সংশ্লিষ্ট গ্রামবাসির চলাচলে দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়।
এ বিষয়ে ঠিকাদারকে পাওয়া না গেলেও তার প্রতিনিধি বশির হোসন বলেন, ইট সংকটের কারণে কাজ করা যাচ্ছেনা বলে দাবী করেন।
এ ব্যপারে উপজেলা প্রকৌশলী পিক্লু কর্মকার বলেন, আমি মঠবাড়িয়ায় সদ্য যোগদার করেছি। মানবন্ধনের বিষয়টি শুনে তাতৎক্ষনিক উর্ধ্বতন কর্তিপক্ষকে অবহিত করেছি। এ বিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হয়ে।
স্থানীয় সাংসদ ডা. রুস্তম আলী ফরাজী বলেন, ঠিকাদার কাজ ফেলে রাখার কথা স্বীকার করে বলেন, ওই সড়কের নির্মান কাজের আমি কোন ফলোক উদ্বোধন করিনি। তিনি আরও বলেন, সড়ক নির্মানের কাজ এলজিইডি ও ঠিকাদারের গাফলতির কারণে স্থবির হয়ে আছে।

print