স্টাফ রিপোর্টার :
আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পিরোজপুর-১ আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও পৌর মেয়র মো: হাবিবুর রহমান মালেককে দেবার দাবী জানিয়ে মিছিল ও সভা করেছে দলীয় নেতাকর্মীরা। শুক্রবার বিকেলে পিরোজপুর জেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ, শ্রমিকলীগ সহ সহযোগী ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা মিছিল ও পথসভা করেন। এ সময় পিরোজপুরে জেলায় বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ডের উদ্বোধনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে এবং পিরোজপুর-১ আসনের জনপ্রিয় মেয়র হাবিবুর রহমান মালেককে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন দেবার দাবী জানান। মিছিলটি শহরের টাউন ক্লাব মাঠ থেকে শুরু হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বিলাস চত্ত্বরে এসে পথসভায় মিলিত হয়।
এ সময় পথ সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি শাহজাহান খান তালুকদার, জেলা আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক জিয়াউল আহসান গাজী, জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক শেখ ফিরোজ, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য তৌহিদুল ইসলাম হিরু, আমিরুল ইসলাম মিরণ, জেলা যুবলীগের সাবেক আহবায়ক ও প্যানেল মেয়র সাদউল্লাহ লিটন, জেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল আহসান জিয়া, জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি মজনু তালুকদার, সদর থানা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ আহম্মেদ রানা, পৌর যুবলীগের সভাপতি আবু সাঈদ, সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল মাহবুব শুভ, সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো: জাহিদুল ইসলাম টিটু সহ জেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ, শ্রমিকলীগ সহ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
সমাবেশে বক্তারা আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পিরোজপুর-১ আসনে হাবিবুর রহমান মালেককে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন দেয়ার জন্য দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনার কাছে দাবী জানান।
সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে যেমন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প নাই, তেমনি আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পিরোজপুর-১ আসনে আওয়ামীলীগকে বিজয়ী করতে জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মেয়র হাবিবুর রহমান মালেকের বিকল্প নাই। পিরোজপুরের দলীয় নেতা-কর্মী, সুশীল সমাজ, ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষের কাছে পিরোজপুর পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব গাবিবুর রহমান মালেক এককজন জনপ্রিয় ব্যক্তি। সৎ, নিষ্টাবান এবং পরোপকারী মানুষ হিসেবে তিনি পিরোজপুরের সর্বস্তরের মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্য। আওয়ামী লীগের দুর্দিনেও তিনি দলীয় নেতা-কর্মীদের পাশে থেকেছেন। নেতা-কর্মীদের অর্থনৈতিক সহযোগিতাসহ সর্বপ্রকার সহযোগিতা করে পিরোজপুরে দলকে সুসংগঠিত করেছেন। দলের জন্য একজন নিবেদিত কর্মী হিসেবে কাজ করে চলছেন। আগামী নির্বাচনে হাবিবুর রহমান মালেককে দলীয় মনোনয়ন দিলে দলীয় নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় পিরোজপুরবাসীর রায় নিয়ে তিনি বিজয়ী হবেন।


উল্লেখ্য, পিরোজপুর-১ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী পিরোজপুর পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হাবিবুর রহমান মালেক নির্বাচনী এলাকায় দীর্ঘদিন থেকে প্রচার-প্রচারনা, গণসংযোগ ও সভা সমাবেশ করে চলছেন। দলীয় মনোনয়ন লাভের জন্য তিনি কেন্দ্রীয় পর্যায়ে জোর তদবীরও করে চলছেন।
মো. হাবিবুর রহমান মালেক ২০০৪ সালে বিএনপি জোট সরকারের সময়ে তৎকালীন জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি শহিদুল আলম নিরুকে পরাজিত করে প্রথমবার পিরোজপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। পরবর্তীতে ২০০৯ বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় এবং ২০১৫ সালে আওয়ামী লীগের মনোনীত হয়ে নৌকা প্রতিক নিয়ে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় পিরোজপুর পৌরসবার মেয়র নির্বাচিত হন।
এছাড়া তিনি ১৯৭৫ এর ১৫ আগষ্টের পরে যখন স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীরা বিপদগ্রস্থ ও বিচ্ছিন্ন অবস্থায় ছিল তৎকালীন সময়ে হাবিবুর রহমান মালেক আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীদের পাশে এসে তাদের কে আবারও সু-সংগঠিত করেছে। ২০১৪ সালের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জামায়াত-বিএনপি সারাদেশে পেট্রোল বোমা হামলা ও বিভিন্ন সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। তখন হাবিবুর রহমান মালেকের নেতৃত্বে জেলা আওয়ামীলীগে ও তার সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা পিরোজপুরে তা রুখে দিয়েছে। দাঁড়িয়েছেন জেলার সনাতন ধর্মালম্ভী সম্প্রদায়ের পাশে এসে। আর এ কারণেই ২০১৪ সালেও পিরোজপুর-১ আসনে নৌকা বিজয়ী হয়েছে।

print