স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুর সদর উপজেলা ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা রামনন্দ্র পালের স্ত্রী অদিতী বড়ালকে ছুড়িকাঘাতে আহত করেছে দুর্বৃত্ত। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭ টায় শহরের ধুপপাশা এলাকার ডিসি অফিস স্টাফ কোয়াটারে বাসার ভিতরে ঢুকে তাকে আহত করা হয়। এ সময় দুর্বৃত্তের হামলায় বাসায় থাকা ঝর্না আক্তার নামের এক কিশোরীও আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
জানযায়, সন্ধ্যা ৭ টার দিকে ধুপপাশা এলাকার ডিসি অফিস স্টাফ কোয়াটারে ২য় তলায় সদর উপজেলা ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা রামনন্দ্র পালের বাসায় এক দুর্বৃত্ত ডিসি অফিসের স্টাফ বলে প্রবেশ করে। পরে বাসায় থাকা সদর উপজেলা ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তার স্ত্রী অদিতী বড়াল (২৬) কে ছুড়িকাঘাত করে এবং বাসায় থাকা কিশোরী ঝর্ণা আক্তারকে ছুড়িকাঘাত করে পালিয়ে যায়।
পরে তারা ডাকচিৎকার দিলে পাশের ঘরের লোকজন বেরিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে।
সদর উপজেলা ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা রামনন্দ্র পাল জানান, হত্যার উদ্দেশ্যেই তার স্ত্রী অদিতী বড়ালের উপর হামলা চালানো হয়েছে। এর আগেও দুই বার একই ভাবে বাসায় ঢুকে অদিতী বড়ালের উপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা।
পিরোজপুর সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সাকিল সরোয়ার জানান, আহত অদিতী বড়ালের পেটে ও হাতে দুইটি ছুড়ির আঘাত ও ঝর্ণা আক্তারের শরীরের একটি ছুড়ির আঘাত পাওয়া গেছে। আহতরা বর্তমানে শঙ্কামুক্ত আছে এবং তাদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
পিরোজপুর সদর থানার ওসি এস এম জিয়াউল হক জানান, এ ঘটনায় হামলাকারীকে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ চেষ্টা করছে এবং আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।
এদিকে হামলার পরপরই হাসপাতালে গিয়ে আহতদের সম্পর্কে খোঁজ-খবর নিয়েছেন জেলা প্রশাসক আবু আলী মো: সাজ্জাদ হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো: মোস্তাফিজুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা ম্যজিষ্ট্রেট ঝুমুর বালা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোল্লা আজাদ সহ জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা।

print