নাজিরপুর প্রতিনিধি: পিরোজপুরের নাজিরপুরে বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে এক এসএসসি পরীক্ষার্থী অবস্থান নিয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার শাখারীকাঠী ইউনিয়নের দীর্ঘা গ্রামে । জানা গেছে, ওই গ্রামের দীর্ঘা ব্রীজ সংলগ্ন দয়াময় হালদারের বাড়িতে গত রবিবার দুপুরে বিয়ের দাবীতে অবস্থান নেয় উপজেলার দীর্ঘা একাডেমী মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে আসন্ন এক এসএসসি পরীক্ষার্থী। ওই পরীক্ষার্থী জানায়, ‘দয়াময় হালদারের পুত্র দেবাশীষ হালদার গত ৫ বছর ধরে আমার সাথে প্রেম করে বিয়ের প্রলভোন দেখিয়ে আমাকে স্ত্রী হিসাবে ব্যাবহার করে আসছে। কিন্তু দেবাশীষের পিতা-মাতা তাকে অন্যত্র বিয়ের ঠিক করলে বিয়ের দাবীতে আমি এ বাড়িতে উঠেছি। কিন্তু আমাকে তাড়িয়ে দিতে দেবাশীষের মা উষা হালদার গত রবিবার দুপুরে ও রাতে মারধর করে ঘর থেকে বেড় করে দেয়। আর আমি এ বাড়িতে উঠার পর থেকে প্রেমিক দেবাশিষ হালদারের মা দেবাশিষকে অন্যত্র পাঠিয়ে দেয়। তা ছাড়া গত রাতে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. আক্তারুজ্জামান গাউস ও ইউপি সদস্য মেরাজ মল্লিক আমাকে এখান থেকে চলে যেতে বললেও আমি যাই নি। আমাকে বিয়ে না করলে আমি আত্মহত্যা করবো।’এ ব্যাপারে থানা পুলিশের অফিসার ইন চার্জ মো. মনিরুল ইসলাম জানান, এ ব্যাপারে কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

print