একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়া স্বতন্ত্র এমপি প্রার্থী আলোচিত অভিনেতা হিরো আলম আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ নেবেন এমন ভিত্তিতে বেশ কিছু গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছে। তবে তা সঠিক নয়।

আজ বুধবার (৯ জানুয়ারি) বিকেলে ‌হিরো আলম জানান যে, ‘তিনি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন করবেন না।’

এ বিষয়ে হিরো আলম বলেন, ‘আমি বগুড়া-৪ আসন থেকে এবারের একাদশ সংসদ জাতীয় নির্বাচনে এমপি প্রার্থী হয়েছিলাম। এই আসনে জয়ী হয়েছেন বিএনপির প্রার্থী। বিএনপির দলীয় সিদ্ধান্তে বিজয়ী প্রার্থী এখনও শপথ নেননি। এমতাবস্থায় নির্বাচনের পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে তিনি শপথ না নিলে এই আসনে ফের উপ-নির্বাচন হবে। আর যদি এই উপ-নির্বাচন হয় তাহলে আমি এই উপ-নির্বাচনেও প্রার্থী হতে চাই।’

হিরো আলম বিডি২৪লাইভকে আরও বলেন, ‘আমাকে বিভিন্ন গণমাধ্যম প্রশ্ন করেছে নিজেরা যে আমি আগামী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন করবো কিনা! আমি বলেছি, আমি উপ-নির্বাচন করবো, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের কথা বলি নি। আর আমি যেখানে বড় পদে নির্বাচন করে এসেছি সেখানে এসব ছোট নির্বাচন করবো না।’

উল্লেখ্য, ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বগুড়া-৪ আসন থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে আলোচিত হিরো আলম নির্বাচনের দিন সকালে ‘হামলা-মারধর ও এজেন্টকে বের করে দেয়াসহ একাধিক অভিযোগে এনে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান। ভোট গণনা শেষে জানা যায়, নিজ আসনে সিংহ প্রতীকে ভোট পেয়েছেন মাত্র ৬৩৮টি।

মোট ভোটের এক-অষ্টমাংশ না পাওয়ায় জামানত হারিয়েছেন হিরো আলমের। ওই আসনে মোট ১ লাখ ২৬ হাজার ৭২২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপির প্রার্থী মোশারফ হোসেন।

মো: ফেরদৌস রহমান (ডেস্ক এডিটর)

print