নন্দিত নির্মাতা তৌকীর আহমেদ পরিচালিত ‘হালদা’ ছবির পর আবারো দেখা যাবে নন্দিত অভিনেতা জাহিদ হাসান ও অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশাকে। এরপর তাদের নাটক-টেলিছিবিতে দেখা গেলেও আবার বড় পর্দায় দেখা যাবে এই জুটিকে। শনিবার বিকেল ছবিতে এই জুটিকে দেখার অপেক্ষায় মুখিয়ে আছেন ভক্তরা।

গত বছর সিনেমাটির শুটিং শেষ হয়। সম্পাদনা শেষে ছবিটি জমা পড়েছিলো সেন্সর বোর্ডে। সেখানে প্রদর্শিত হওয়ার পর মুক্তির অনুমতি পেয়েছে ‘শনিবার বিকেল’ ছবিটি। গতকাল বুধবার, ৯ জানুয়ারি সিনেমাটি সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র পেয়েছে। ছবিটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। নতুন এই সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী।

ছবিটির নাম ‘শনিবার বিকেল’ হলেও আন্তর্জাতিক বাজারকে টার্গেট করে ছবিটির ইংরেজি নাম রাখা হয়েছে ‘স্যাটারডে আফটারনুন’। এই ছবিতে জাহিদ হাসান ও তিশা ছাড়াও অভিনয় করেছেন ফিলিস্তিনি অভিনেতা ইয়াদ হুরানির।

অস্কার মনোনীত ‘ওমর’-এ অভিনয় করেছিলেন ফিলিস্তিন এ অভিনেতা। কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেতা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়কেও দেখা যাবে এই ছবিতে। সেই সাথে রয়েছেন দেশের আরও ক’জন তারকা অভিনয় শিল্পীও।

জাজ মাল্টিমিডিয়া থেকে জানানো হয়, বিনা কর্তনে ‘শনিবার বিকেল’ সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে। দ্রুত বাংলাদেশ ও ভারতসহ বিশ্বব্যাপী সিনেমাটি মুক্তি দেওয়া হবে। মুক্তির তারিখ শিগগিরই জানানো হবে।

সেন্সর বোর্ড সূত্র জানা যায়, ছবিটিতে সংলাপে কিছু সমস্যা রয়েছে। সেগুলো সংশোধনের জন্য নির্মাতা মোস্তফা সরোয়ার ফারুকীকে পরামর্শ দিয়েছে সেন্সর বোর্ড। তবে এ বিষয়ে ফারুকী কিছু অবগত নন বলে জানান। তিনি প্রযোজকের সঙ্গে কথা বলে বিস্তারিত জেনে ব্যবস্থা নেবেন বলেও নিশ্চিত করলেন।

ছবিটি সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘আমার ক্যারিয়ারের খুব গুরুত্বপূর্ণ সিনেমা ‘শনিবার বিকেল’। আশা করছি দর্শক উপভোগ করবেন এটি। শিগগিরই জাজের পরিবেশনায় ছবিটি দেশজুড়ে মুক্তি পাবে।’

মো: ফেরদৌস রহমান (ডেস্ক এডিটর)

print