বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:৪৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম
পিরোজপুরে জেলা বাস, মিনিবাস, কোচ ও মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত পিরোজপুরে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শহীদ ফজলুল হক মনির জন্মদিন পালিত পিরোজপুরে বঙ্গবন্ধু জাতীয় ফুটবল চ্যাম্পিয়নশীপ খেলার উদ্বোধন নাজিরপুরে চা ব্যবসায়ীর ছাগল চুরি করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মচারীদের ভুড়ি ভোজ : অভিযোগে আদালতে মামলা নেছারাবাদে ছারছীনা মাহফিলের আখেরী মোনাজাত সম্পন্ন পিরোজপুরে যুবলীগ নেতা শুভ হত্যাকারীদের দ্রুত ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন পিরোজপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য বীর নিবাস নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক সাবেক সংসদ সদস্য স্বর্গীয় শ্রী চিত্তরঞ্জন সূতার ১৯ তম স্মরন সভা অনুষ্ঠীত পিরোজপুরে যুবলীগ নেতা শুভ হত্যা মামলার প্রধান আসামি রিমান্ডে পিরোজপুরে নৌকা মার্কার প্রচারে গিয়ে গুলিবিদ্ধ যুবলীগ নেতা শুভ মারা গেছে

বিএনপির নেতাদের স্বাক্ষর জালিয়াতি ও ভূয়া প্যাড ব্যবহার করে পিরোজপুরে নৌকার প্রার্থীদের নামে মিথ্যা প্রচারণা

dav

স্টাফ রিপোর্টার :
আসন্ন ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পিরোজপুর সদর উপজেলার শংকরপাশা ইউনিয়ন ও দুর্গাপুর ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা মার্কার প্রার্থীদের নামে বিএনপির নেতাদের স্বাক্ষর জালিয়াতি করে ও ভূয়া প্যাড ব্যবহার করে মিথ্যা প্রচারণা করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই দুই ইউনিয়নের নৌকা মার্কার প্রার্থীদের নামে বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত থাকার যে তথ্য প্রচার করা হচ্ছে তা বিএনপির নেতাদের স্বাক্ষর জালিয়াতি করে ও ভূয়া প্যাড ব্যবহার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা বিএনপির সভাপতি গাজী নুরুজ্জামান বাবুল।
এদিকে এ মিথ্যাচারের পিরোজপুরে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন পিরোজপুর সদর উপজেলার শংকরপাশা ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা মার্কার প্রার্থী তোফাজ্জেল হোসেন মল্লিক স্বপন ও দুর্গাপুর ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা মার্কার প্রার্থী রাম প্রসাদ রায়।
পিরোজপুর সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও শংকরপাশা ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী তোফাজ্জেল হোসেন মল্লিক স্বপন জানান, ১৯৮৫ সাল থেকে জেলা আওয়ামীলীগের বর্তমান সভাপতি আলহাজ¦ এ কে এম এ আউয়ালের নেতৃত্বে মাঠ পর্যায়ে আওয়ামীলীগের কর্মী হিসেবে কাজ করে আসছেন তিনি। ২০০১ সালের জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামীলীগের পক্ষে কাজ করার জন্য তার বিরুদ্ধে জন নিরাপত্তার আইনে তিনটি মামলার আসামী করা হয় । যা আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পরে স্বারাষ্ট্রমন্ত্রানলায় রাজনৈতিক মামলার হিসেবে অব্যাহতি দেয়া হয়। বর্তমানে তিনি পিরোজপুর সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে আছেন। এর আগেও তিনি পিরোজপুর সদর উপজেলার আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ২০০৩ সালের শংকারপাশা ইউনিয়ন পরিষদে প্রথমে তিনি আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়। এরপরে ২০১১ সালেও আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী এবং ২০১৬ সালে আওয়ামীলীগের মনোনীয় নৌকা মার্কার প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিয়ে বিনা প্রতিদ্ধন্ধিতায় নির্বাচিত হন। বর্তমানে ২০২১ এই নির্বাচনেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে নৌকা মার্কা দেন। কিন্তু একটি কুচক্রি মহল নৌকা মার্কাকে ভয় পেয়ে তার বিরুদ্ধে জালিয়াতির মাধ্যেমে নানা মিথ্যা তথ্য প্রচার করছে।
তোফাজ্জেল হোসেন মল্লিক স্বপন অভিযোগ করে জানান, তার বিরুদ্বে ষড়যন্ত্র করে তার রাজনৈতিক ভাবমূর্তিকে ক্ষুণœ করা সহ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বিভ্রত করার জন্যই বিএনপির জেলা সভাপতির স্বাক্ষর জালিয়াতি করে এবং ভূয়া প্যাড ব্যবহার করে তার বিরুদ্ধে ফেসবুক সহ নানা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যেমে মিথ্যা প্রচারণা করছে। তিনি কখনোই বিএনপির কোন রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন না।
এদিকে দুর্গাপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী রাম প্রসাদ রায় জানান, ১৯৯৬ সালের আওয়ামীলীগের নিবার্চনে নৌকা মার্কার পক্ষে কাজ করার জন্য তৎতালীন বিএনপির নেতা-কর্মীদের হামলায় আহত হন তিনি। তিনি সহ তার পরিবারের সকল সদস্য বঙ্গবন্ধুর চেতানায় বিশ^াসীয় হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বকে বিশ^াস করেন। তিনি ১৯৯৬ সাল থেকে তিনি ইউনিয়ন ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ এবং বর্তমানে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্বরত আছি। কিন্তু একটি মহল আওয়ামীলীগের প্রার্থীর ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য বিএনপির নেতার স্বাক্ষর জালিয়াতি করে এবং ভূয়া প্যাড ব্যবহার তার বিরুদ্ধে মিথ্যা গুজব ছড়াচ্ছে।
এ বিষয়ে পিরোজপুর সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন মল্লিক নাসির জানান, তিনি আওয়ামীলীগ মনোনীত কোন প্রার্থীর নামে কোন প্রত্যায়নে স্বাক্ষর করেনি।
পিরোজপুর জেলা বিএনপির সভাপতি গাজী নুরুজ্জামান বাবুল জানান, পিরোজপুর জেলা বিএনপির ভূয়া প্যাড ও তার স্বাক্ষর জালিয়াতি করে একটি কুচক্রী মহল মিথ্যা প্রচারণা করেছে। তিনি এই প্রত্যায়ণের বিষয়ে কোন কিছুই জানেন না। এছাড়া তিনি আরো বলেন তোফাজ্জেল হোসেন মল্লিক স্বপন কখনোই বিএনপির কোন রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন না। যারা এই জালিয়াতি করে এ মিথ্যা তথ্য ছড়াচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে তিনি আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলেও জানান।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017 gramersamaj.com
Design & Developed BY NCB IT